+
আমার ডেঙ্গু হয়েছিল, আমি জানি এটা কতটা কষ্টকর
 আমার ডেঙ্গু হয়েছিল, আমি জানি এটা কতটা কষ্টকর

আমার ডেঙ্গু হয়েছিল, আমি জানি এটা কতটা কষ্টকর

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় বেড়েছে ডেঙ্গুর প্রকোপ। ভাইরাসজনিত এ রোগের কারণে শঙ্কা বাড়ছে মানুষের মনে। তবে শুরু থেকে সচেতন থাকলে জটিলতা অনেকটাই এড়ানো সম্ভব।

ডেঙ্গু সচেতনতা বাড়াতে মাঠে নেমেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটে দলের তারকা খেলোয়াড় সাকিব আল হাসান।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় বনানীর বিদ্যানিকেতন স্কুল অ্যান্ড কলেজে ডেঙ্গুবিষয়ক সচেতনতামূলক কার্যক্রমে উপস্থিত হন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব।

এ দিন তিনি বলেন, আমার একবার ডেঙ্গু হয়েছিল। তাই আমি জানি এটা কতটা কষ্টকর। দেশের অনেকে সিরিয়াস অবস্থায় আছে, অনেকে মারা যাচ্ছে। আমাদের সচেতন হতে হবে। নয়তো এই রোগ থেকে প্রতিকার পাওয়া সহজ হবে না। যতক্ষণ পর্যন্ত আমরা সঠিকভাবে জানতে পারব আমাদের কী করা উচিত, কোনো লাভ হবে না। শুধু শুনলাম কিন্তু বুঝলাম না বা কাজটা করলাম না, তাহলে কিন্তু লাভ হবে না।

তিনি আরও বলেছেন, আমি যতদূর জানি বনানী বিদ্যানিকেতনে সাড়ে ৬ হাজার ছাত্র আছে। মানে সাড়ে ৬ হাজার পরিবার। তারা যদি একটা পরিবারকেও বলে তাহলে ১৩ হাজার পরিবার জেনে যাচ্ছে। এটা যদি সামান্য পরিমাণেও কাজে আসে, তাহলে আমার এই প্রচারণা সার্থক হবে। আর এটা যেহেতু বাচ্চাদের বেশি আক্রান্ত করে, ওরা যদি আমার একটা কথাও মনে রাখে, তাতেই আমি সফল হব।

জাতীয় দলের এই সহ-অধিনায়ক আরও বলেন, অবশ্যই আমি তো মনে করি সব তারকাদের স্কুলে গিয়ে প্রচারণায় অংশ নেয়া উচিত। আপনাদের মিডিয়ারও ভূমিকা আছে। আমাদের এই কথাগুলো যদি তাদের কাজে আসে, এটাই সার্থকতা।



Published: 2019-08-01 20:35:39