+
নদীর ধারে ডাইনোসরের ডিম খুঁজে পেল স্কুল শিক্ষার্থী
নদীর ধারে ডাইনোসরের ডিম খুঁজে পেল স্কুল শিক্ষার্থী

নদীর ধারে ডাইনোসরের ডিম খুঁজে পেল স্কুল শিক্ষার্থী

এক স্কুল শিক্ষার্থীর কারণে ডাইনোসরের ১১টি ডিমের সন্ধান পেয়েছে চীন। বাড়ির পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া নদীর ধারে প্রতিদিনই খেলতো ঝ্যাঙ ইয়াংঝে (১০)। একদিন আখরোটের খোল ভাঙার জন্য বাঁধের ধারে পাথর খুঁজতে শুরু করে ঝ্যাঙ। তখনই তার চোখে পড়ল ব্যাপারটা। একটি পাথরের গায়ে গোল গোল সাদা রঙের ছাপ। এরকম একটা পাথর তো সে জাদুঘরে ডাইনোসরদের সংগ্রহশালায় দেখেছে। 

 

ঝ্যাঙ জেদ ধরায় পুলিশকে জানায় তার মা। পুলিশের সঙ্গে আসে হেয়ুয়ান জাদুঘরের ডাইনোসর এক বিশেষজ্ঞ। পাথরটি যাচাই করেই নিশ্চিত হন তিনি। ডাইনোসরের ডিমের ফসিল সেই পাথর। সঙ্গে সঙ্গে জাদুঘরে তার সহকর্মীদের ডেকে পাঠান তিনি। যে জায়গা থেকে পাথরটি পাওয়া গিয়েছে, ঝ্যাঙের সঙ্গে সেই জায়গায় যান তারা। মাটি খুঁড়ে সেখান থেকেই আরও ডাইনোসরের ১০টি ডিমের ফসিল উদ্ধার করেন তারা।

 

ঝ্যাঙ-এর মা জানান, ছোট বয়স থেকেই বিজ্ঞানে বেশ আগ্রহী ঝ্যাঙ। হেয়ুয়ান জাদুঘরেও ডাইনোসরের ফসিল দেখতে গিয়েছিল সে। তাই ডাইনোসরের ডিম চিনতে অসুবিধা হয়নি। ২০১৫ সালে রাস্তার তৈরীর কাজ চলার সময়ে মাটির নিচ থেকে ডাইনোসরের ৪৩টি ডিমের ফসিল উদ্ধার হয়। ১৯৯৬ সালে এই শহরে প্রথম ডাইনোসরের ডিমের ফসিল পাওয়া যায়। তার পর  থেকে প্রায় ১৭,০০০টি ডাইনোসরের ডিমের সন্ধ্যা পাওয়া গিয়েছে। 



Published: 2019-07-31 11:08:34