+
চিকিৎসা ব্যয় জোগাতে অনলাইনে চলছে ফান্ডিং এন্ড্রু কিশোরের
চিকিৎসা ব্যয় জোগাতে অনলাইনে চলছে ফান্ডিং এন্ড্রু কিশোরের

চিকিৎসা ব্যয় জোগাতে অনলাইনে চলছে ফান্ডিং এন্ড্রু কিশোরের

দেশসেরা সঙ্গীতশিল্পী এন্ড্রু কিশোর ক্যানসার আক্রান্ত হয়ে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। তাকে অন্তত আড়াই থেকে ৩ মাস আরও চিকিৎসা দিতে হবে।

এর জন্য প্রয়োজন দুই কোটিরও বেশি টাকা। এই ব্যয় সামাল দেয়া তার পরিবারের একার পক্ষে সম্ভব নয়। এ কারণে অনলাইনে ফান্ডিংয়ের আবেদন করেছেন তার স্ত্রী লিপিকা এন্ড্রু।

‘গো ফান্ড মি’ নামের ওয়েবসাইটে এটি করা হয়েছে। সেখানে কিশোরপত্নী জানান, এন্ড্রু কিশোরের শরীরে ক্যানসারের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। অত্যন্ত ব্যয়বহুল এবং দীর্ঘমেয়াদি এ চিকিৎসার জন্য পূর্ব প্রস্তুতি না নিয়ে সিঙ্গাপুরে যান তারা।

সেখানে বায়োপসিতে ক্যানসার ধরা পড়লে ডাক্তারদের পরামর্শে দ্রুত তার চিকিৎসা শুরু করতে হয়। বর্তমানে তিনি সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে ডাক্তার লিমসুন থাইয়ের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জানা গেছে, হাসপাতালের চিকিৎসা বোর্ডের কাগজপত্র নিয়ে সিঙ্গাপুর প্রবাসী বাংলাদেশিরা এই অনলাইন ফান্ডিংটির পেজ চালু করেন। এন্ড্রু কিশোরও জানান, একপ্রকার বাধ্য হয়ে এই ফান্ড খুলতে হয়েছে।

জানা গেছে, এন্ড্রু কিশোরকে যে কেমোথেরাপি দেয়া হচ্ছে তার প্রতিটির মূল্য প্রায় ৯ লাখ টাকা। এরইমধ্যে ১২ টি ক্যামো তাকে দেয়া হয়েছে। দ্বিতীয় সাইকেলে আরও ১২ টি ক্যামো দিতে হবে তাকে।

এরই মধ্যে গুণী এই শিল্পীর চিকিৎসায় তার পরিবার কোটি টাকারও বেশি খরচ হয়ে গেছে। প্রয়োজন আরও অনেক টাকার। সিঙ্গাপুরে যাওয়ার আগে গত ৮ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবনে এন্ড্রু কিশোরকে আমন্ত্রণ জানান।

এ সময় তিনি এন্ড্রু কিশোরের শারীরিক সমস্যার খোঁজ খবর নেন এবং তার চিকিৎসার জন্য ১০ লাখ টাকার চেক তুলে দেন। এছাড়া একটি বেসরকারি চ্যানেলের কর্তৃপক্ষ তার চিকিৎসায় সহায়তায় আরও ১০ লাখ টাকা দিয়েছে।

এন্ড্রু কিশোরের পরিবারের ঘনিষ্ট ও তার ভক্ত সংগীতশিল্পী মোমিন বিশ্বাস গুণী এই শিল্পীর সঙ্গে কথা বলে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। এতে তিনি লিখেছেন- ‘১১ সেপ্টেম্বর থেকে ১৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে ১৮ সেপ্টেম্বর এন্ড্রুদার বায়োপসি রিপোর্ট পাওয়া যায়।

রিপোর্টে তার শরীরে ক্যান্সারের অস্তিত্ব মেলে। অত্যন্ত ব্যয়বহুল ও দীর্ঘ সময় এই চিকিৎসার তেমন কোনো পূর্ব প্রস্তুতি না নিয়ে গেলেও ডাক্তারদের পরামর্শে দ্রুত তার চিকিৎসা শুরু হয়।এ পর্যন্ত তার তিনটি সাইকেলে ১২টি কেমোথেরাপি সম্পন্ন হয়েছে।

তিনি লেখেন, ‘২৬ নভেম্বর থেকে এন্ড্রু কিশোরের কেমোথেরাপির পরবর্তী সাইকেল শুরু হবে এবং তিনটি সাইকেলে আরও ১২টি কেমোথেরাপি সম্পন্ন করা হবে বলে সেখানকার ডাক্তার জানিয়েছেন।

বর্তমানে তার শরীর অনেকটা ভালো। যথাযথভাবে চিকিৎসা চলছে বলে এন্ড্রুদা অবগত করেছেন। তার এই চিকিৎসা আরও প্রায় আড়াই থেকে তিন মাস চলবে বলে ডাক্তার জানিয়েছেন।’

এন্ড্রু কিশোর ভক্ত এই সংগীতশিল্পী আরও লেখেন, এন্ড্রুদাকে ক্যারিয়ারের শুরুতেই বলিউডে ক্যারিয়ার গড়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন প্রখ্যাত সংগীত পরিচালক আরডি বর্মণ।

তার সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়ে জন্মভূমিতেই গত ৪০ বছর ধরে সব মিলিয়ে প্রায় ১৫ হাজারের বেশি গান গেয়েছেন তিনি।পেয়েছেন আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

একজন এন্ড্রু কিশোর যুগে যুগে জন্মান না, কয়েক শতকে হয়তো একবার জন্ম নেন। আসুন তার এই দুঃসময়ে পাশে থেকে মানসিক সমর্থন দিই এবং সর্বোপরি তার সুস্থতার জন্য দোয়া করি।উল্লেখ্য, ক্যান্সার সন্দেহে ৯ সেপ্টেম্বর উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে যান এন্ড্রু কিশোর।

সেখানে বায়োপসি রিপোর্সে তার ক্যান্সার ধরা পড়ে। পরে ক্যামোথেরাপি দেয়া শুরু হয়। জনপ্রিয় এই শিল্পীর চিকিৎসায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আর্থিক সহায়তা করেছেন।



Published: 2019-11-25 13:33:09