+
কারখানা বন্ধ করছে স্যামসাং
কারখানা বন্ধ করছে স্যামসাং

কারখানা বন্ধ করছে স্যামসাং

স্যামসাং ইলেকট্রনিকস চীনের তিয়ানজিনে একটি মোবাইল ফোন উৎপাদন কারখানা বন্ধ করতে যাচ্ছে ।দেশটির স্থানীয় প্রতিদ্বন্দ্বীদের কারণে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বাজারটিতে স্যামসাংয়ের বিক্রি কমায় এই সিদ্ধান্তে এসেছে দক্ষিণ কোরীয় প্রতিষ্ঠানটি-- খবর রয়টার্সের।

স্মার্টফোন নির্মাতা চীনের স্থানীয় প্রতিষ্ঠানগুলো অপেক্ষাকৃত কম মূল্যে স্মার্টফোন বিক্রি করায় দেশটিতে চাহিদা কমেছে স্যামসাং ফোনের। চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে চীনা স্মার্টফোন বাজারের এক শতাংশ ছিল স্যামসাংয়ের দখলে, যেখানে ২০১৩ সালের মাঝামাঝি প্রতিষ্ঠানটির দখলে ছিল ১৫ শতাংশ। হুয়াওয়ের মতো প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে বাজার হারিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

স্যামসাংয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, “আমাদের কারখানাগুলো উৎপাদন ক্ষমতা আরও কার্যকর করতে আমাদের চলমান প্রচেষ্টায় স্যামসাং ইলেকট্রনিকস একটি কঠিন সিদ্ধান্তে এসেছে যে, তিয়ানজিন স্যামসাং ইলেকট্রনিকস টেলিকমিউনিকেশন-এর কার্যক্রম বন্ধ করা হচ্ছে।”

স্যামসাংয়ের এই কারখানাটির বর্তমান কর্মী সংখ্যা ২৬০০। চলতি বছরের শেষে বন্ধ হচ্ছে কারখানাটি।

কারখানার কর্মীদেরকে ক্ষতিপূরণ এবং অন্য স্যামসাং কারখানায় কাজের সুযোগ দেওয়ার কথা জানিয়েছে দক্ষিণ কোরীয় প্রতিষ্ঠানটি।

তিয়ানজিন কারখানায় বছরে ৩.৬ কোটি স্মার্টফোন উৎপাদন করতো স্যামসাং। অন্যদিকে হুইঝু কারখানায় বছরে উৎপাদন হয় ৭.২ কোটি স্মার্টফোন। আর ভিয়েতনামের দুইটি কারখানায় বছরে ২৪ কোটি স্মার্টফোন উৎপাদন করে প্রতিষ্ঠানটি।



Published: 2018-12-16 08:12:15