+
এবার টয়ার বিয়ের খবর
এবার টয়ার বিয়ের খবর

এবার টয়ার বিয়ের খবর

আপনার বন্ধুরা সবাই বিয়ে করে ফেলল, আপনারটা কবে? ‘হা হা হা। আমারও হয়ে যাবে। পারিবারিকভাবে অনেক দিন ধরেই বলছে। আমিও প্রস্তুতি নিয়েছি।  ইচ্ছা আছে আগামী বছরই কাজটা সেরে ফেলার।’ বললেন মুমতাহিনা টয়া। নিজের বিয়ের ব্যাপারে প্রথম আলোকে আরও জানালেন, যাঁর সঙ্গে সঙ্গে বিয়ে হবে, তিনি মিডিয়ার কেউ নন। সম্পর্কটা অনেক দিনের। বিয়েটা যেন পারিবারিকভাবেই হয়, তার জন্য দুজনই অপেক্ষা করছে। এবার আশা করছেন, আগামী বছর মাঝামাঝি নাগাদ তাঁদের বিয়ে হবে। 

মিডিয়ায় এখন যাঁদের বিয়ে হচ্ছে, তাঁরা সবাই টয়ার বন্ধু কিংবা সহকর্মী। সবার বিয়েতে আনন্দ করতে দেখা যায় টয়াকে। এর আগে টয়াকে প্রশ্ন করা হয়, পাত্র হিসেবে কী পেশার ছেলে পছন্দ? তিনি বলেছেন, ‘বিশেষ কোনো পছন্দ নেই। আমার কাজ ও আমাকে সম্মান করবে এবং ভালোবাসবে—এমন ছেলে হলেই হবে।’ ছোট পর্দার তারকা মুমতাহিনা টয়া সম্প্রতি অভিনয় করেছেন চলচ্চিত্রে। ছবির নাম ‘বেঙ্গলি বিউটি’। পরিচালক ও ছবির নায়ক রাহশান নূর। বাংলাদেশের পর ছবিটি কয়েকটি দেশে মুক্তি দেওয়া হয়েছে।

এদিকে টয়া জানান, আজ মঙ্গলবার থেকে বাংলাদেশ টেলিভিশনে তাঁর অভিনীত একটি ধারাবাহিক নাটকের প্রচার শুরু হচ্ছে। নাম ‘শেষ ভালো যার’। নাটকটি লিখেছেন ও নির্দেশনা দিয়েছেন রাকেশ বসু। প্রযোজনা করেছেন মাহফুজার রহমান। নাটকটি সপ্তাহের মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে নয়টায় প্রচারিত হবে। ‘শেষ ভালো যার’ নাটকের শুটিং হয়েছে সম্প্রতি। পারিবারিক গল্পের নাটক। পরিবারের প্রত্যেক সদস্যের মধ্যে যে সম্পর্ক, টানাপোড়েন—এসব নিয়েই এগিয়েছে গল্পটি। টয়া জানালেন, নাটকে তিনি সবার মধ্যমণি। নানা সমস্যায় সবাইকে ম্যানেজ করেন। 

এবারই প্রথম বিটিভির নাটকে কাজ করেছেন টয়া। বললেন, ‘এই ধারাবাহিক নিয়ে কথা বলার জন্য বিটিভিতে গিয়েছিলাম। ওটাই প্রথম বিটিভিতে যাওয়া। প্রযোজক আমাদের ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে বিটিভির স্টুডিও, বিভিন্ন অনুষ্ঠান ও নাটকের সেট বানানো দেখিয়েছেন। আর ছোটবেলায় বিটিভিতে সরাসরি সম্প্রচারের সময় ভেতরের বেশ কিছু জায়গা টিভিতে নিয়মিত দেখতাম। এবার গিয়ে সরাসরি দেখেছি।’ ওয়েব সিরিজ ‘অ্যাডমিশন টেস্ট’-এর সিক্যুয়েলে কাজ করেছেন টয়া। জানালেন, এবার একেবারে আলাদা গল্প। তবে আগের গল্পের সঙ্গে মিল রেখেই নতুন গল্প সাজানো হয়েছে। নির্মাতা তপু খান ছিলেন ক্যামেরার পেছনে। আর এর কাজ করেছেন নেপালে।



Published: 2018-12-18 11:40:40