+
আবু সাইয়িদের গাড়ি বহরে হামলা
আবু সাইয়িদের গাড়ি বহরে হামলা

আবু সাইয়িদের গাড়ি বহরে হামলা

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে পাবনার সাঁথিয়ায় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী আবু সাইয়িদের গাড়ি বহরে আওয়ামী লীগ কর্মীদের হামলার অভিযোগ পাওয়া গেছে।   

আওয়ামী লীগ ছেড়ে গণফোরামে যোগ দেওয়া পাবনা-১ আসনের প্রার্থী আবু সাইয়িদ ওই হামলার জন্য আওয়ামী লীগ প্রার্থী শামসুল হক টুকুর লোকজ্নকে দায়ী করেছেন।

তবে সাঁথিয়া থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম বলেছেন, আবু সাইয়য়িদ নিজে থানায় এসে হামলার অভিযোগ করে গেছেন।কারা ওই হামলা চালিয়েছে সে বিষয়ে পুলিশ নিশ্চিত নয়।   

আবু সাইয়িদ বলেন, “আমি নির্বাচনী প্রচারে সাঁথিয়া বাজারে স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলার সময় শামসুল হক টুকুর লোকজন আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। পরে আমি দ্রুত সেখান থেকে সাঁথিয়া থানায় গিয়ে আশ্রয় নিই।”

এ ঘটনায় তিনি নিজেসহ দলের অন্তত ১০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে দাবি করেন সাইয়িদ।

তিনি বলেন, “আমাদের একজন মোটর সাইকেল চালককে খুঁজে পাচ্ছি না। তিনটি মোটর সাইকেল তারা নিয়ে গেছে।”

এমন ‘সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে মধ্যে’ কোনোভাবেই সুষ্ঠু নির্বাচন ‘সম্ভব নয়’ মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের এই সাবেক এ নেতা বলেন, “আমার এলাকায় গণজোয়ার দেখে টুকুর লোকজনের মাথা খারাপ হয়ে গেছে। তাই তারা আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসী হামলা করেছে।”

নির্বাচন কমিশনে এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ করবেন বলেও জানান তিনি।

১৯৯৬ সাল থেকে পাঁচ বছর আওয়ামী লীগ সরকারের তথ্য প্রতিমন্ত্রী ছিলেন আবু সাইয়িদ। ওয়ান-ইলেভেনের পর দলে সংস্কারপন্থী হিসেবে পরিচিতি পাওয়ায় নেতৃত্ব থেকে ছিটকে পড়েন আওয়ামী লীগের তখনকার তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক।

 

২০১৪ সালে দশম সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পেয়ে আবু সাইয়িদ স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন। কিন্তু নৌকার প্রার্থী শামসুল হক টুকুর কাছে হেরে যান তিনি।

 

এবার নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর হঠাৎ করেই তিনি গণফোরামে যোগ দেন। জোটের সিদ্ধান্তে বিএনপির ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে তিনি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লড়ছেন।



Published: 2018-12-13 18:26:41