+
অ্যাপল, স্যামসাংয়ের জরিমানা
অ্যাপল, স্যামসাংয়ের জরিমানা

অ্যাপল, স্যামসাংয়ের জরিমানা

ইতালিয়ান কর্তৃপক্ষ অ্যাপল ও স্যামসাংকে পুরানো স্মার্টফোনে পরিকল্পিতভাবে ধীর গতি আনার দায়ে জরিমানা করেছে।

অ্যাপলকে এক কোটি মার্কিন ডলার ও স্যামসাংকে ৫০ লাখ ডলার জরিমানা করেছে দেশটি-- খবর বিবিসি’র।

ইতালিয়ান বাজার প্রতিযোগিতা কর্তৃপক্ষের এক বিবৃতিতে বলা হয়, “অ্যাপল ও স্যামসাং অন্যায্য বাণিজ্যিক কার্যক্রম চালিয়েছে।”

কর্তৃপক্ষের দাবি সফটওয়্যার আপডেটের মাধ্যমে পুরানো ফোনের গতি কমানো হয়েছে। এর ফলে “গুরুতর সমস্যা দেখা দিয়েছে এবং কার্যক্ষমতা লক্ষণীয় মাত্রায় কমেছে,” এর মাধ্যমে গ্রাহককে ডিভাইস আপগ্রেড করতে (বেশি ক্ষমতাসম্পন্ন নতুন ডিভাইস কিনতে) প্ররোচিত করা হয়েছে।

প্রতিষ্ঠানগুলো অপারেটিং সিস্টেম আপগ্রেড করতে উদ্বুদ্ধ করলেও নতুন সফটওয়্যার চলার জন্য স্মার্টফোনের কেমন কর্মক্ষমতা চাইবে তা স্পষ্ট করেনি বলেও জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

স্যামসাংয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়, কর্তৃপক্ষের এমন সিদ্ধান্তে তারা ‘হতাশ’।কোরীয় প্রতিষ্ঠানটির এক মুখপাত্র বলেন, “স্যামসাং এমন কোনো সফটওয়্যার আপডেট আনেনি যা গ্যালাক্সি নোট ৪-এর কার্যক্ষমতা কমাবে। আর স্যামসাং সবসময় এমন সফটওয়্যারই উন্মুক্ত করে যাতে গ্রাহকরা সবচেয়ে ভালো অভিজ্ঞতা পায়।”

অন্যদিকে স্যামসাংয়ের চেয়ে অ্যাপলকে বেশি জরিমানা করা হয়েছে। আইফোন ব্যাটারি নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানাতে ব্যর্থ হওয়ায় এই জরিমানা করা হয়েছে প্রতিষ্ঠানটিকে।

আগের বছর অ্যাপলের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে যে ব্যাটারির ক্ষমতা সময়ের সঙ্গে কমে যাওয়ায় ইচ্ছাকৃতভাবে পুরানো কিছু আইফোনের গতি কমিয়ে দেয় প্রতিষ্ঠানটি। এতে ডিভাইস দীর্ঘস্থায়ী হয় বলে দাবি করে প্রতিষ্ঠানটি।

 



Published: 2018-10-28 17:10:39